যুক্তরাজ্যে সিলেটি মেয়ে ‘হেইট ক্রাইমের’ শিকার, মুখে অ্যাসিড নিক্ষেপ

0

বিয়ানীবাজার ভিউ২৪ ডটকম, ২৩ মে ২০১৮,

যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামে নিজ বাড়ির লবিতে অ্যাসিড হামলার শিকার হয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক আফিয়া বেগম (২৬)। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ব্রিটিশ এক স্কুলছাত্রকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বার্মিংহাম লাইভের বরাতে জানা যায়, গত ৮ এপ্রিল আফিয়া বেগম পাশের একটি পেট্রোল স্টেশন থেকে নিজ অ্যাপার্টমেন্টের লবিতে পৌঁছানোর পর এক ব্রিটিশ কিশোর এক বোতল হাইড্রোলিক এসিড ছুড়ে মারে। সঙ্গে সঙ্গে তার মুখ, ঘাড় ও গলাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ পুড়ে যায়। চোখ মারাত্মক জখম হয়। হামলাকারী পালিয়ে যাওয়ার পর আফিয়ার এক বন্ধু তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে পুলিশ সন্দেহভাজন ১৪ বছরের ওই কিশোরকে গ্রেফতার করে।

ঘটনার বর্ণনায় আফিয়া বেগম বলেন, ‘আমি যখন পেট্রোল স্টেশনে যাই তখন মনে হয় এই লোকটি আমাকে দেখছিল। যখন আমি রাস্তা পার হয়ে বাসার দিকে যাচ্ছি তখন দেখলাম একটি কালো গাড়ি থেকে একজন লোক বের হচ্ছে। কিন্তু আমি চিন্তা করিনি সে আমাকে আক্রমণ করবে। আমি ফোনে কথা বলতে বলতে যখন অ্যাপার্টমেন্টের সামনে আসি তখন লোকটি এসে আমার ঘাড় এবং হাত ধরে। আমি চিৎকার দিয়ে ওঠার সঙ্গে সঙ্গে আমার মোবাইল ফোনটি পড়ে যায়। তখনই সে আমার উপর এক বোতল অ্যাসিড ছুড়ে মারে। আমি যখন সাহায্যের জন্য চিৎকার করছি তখন সে আমার ফোনটি কুড়িয়ে নিয়ে দৌড়ে চলে যায়।’ আফিয়া জানান, তিনি যখন হাসপাতালের বিছানায় ব্যথায় কাতর তখন পুলিশ তদন্তের নামে তার সঙ্গে দেখা না করে বাসায় যায়। কিন্তু ফেরার সময় বাসায় তালা না লাগিয়ে যাওয়ায় বাসার মূল্যবান জিনিসপত্র চুরি হয়ে যায়।

ক্ষোভের সঙ্গে আফিয়া বলেন, ‘এক সপ্তাহ পরে আমি যখন হসপিটাল থেকে বাসায় ফিরি, দেখি আমার বাসায় চুরি হয়েছে। পুলিশ যেখানে আমাকে দেখতে আসার কথা, আমার সঙ্গে কথা বলার কথা, সেখানে উল্টো তারা আমার বাসায় গিয়ে তল্লাশি করে। যাওয়ার সময় বাসার দরজা খুলে রেখে যাওয়ায় আমার বাসা চুরি হয়। জুয়েলারি, টিভি, তিনটি ব্যাংক কার্ডসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র খোয়া গেছে।’

ওয়েস্ট মিডলেন্ডস পুলিশের একজন মুখপাত্র বলেন, ‘গত ৮ এপ্রিল হওয়া অ্যাসিড হামলার তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।’ প্রত্যক্ষদর্শীদের তথ্য দিয়ে সহযোগিতার আহবান জানিয়েছেন তিনি।

Share.

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.