Beanibazar View24
Beanibazar View24 is an Online News Portal. It brings you the latest news around the world 24 hours a day and It focuses most Beanibazar.

মিশিগান স্টেট ইউনিভার্সিটি: বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে যেসব স্কলারশিপ

যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান স্টেট ইউনিভার্সিটি ১৮৫৫ সালে প্রতিষ্ঠিত। প্রতি ফল সেমিস্টারে এ বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩৮ হাজার ৫৭৪ জন শিক্ষার্থী আন্ডারগ্র্যাজুয়েট ডিগ্রির জন্য ভর্তি হন। শহরতলীতে অবস্থিত এই বিশ্ববিদ্যালয়ে সেমিস্টারভিত্তিক শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

স্থানীয়দের জন্য বার্ষিক টিউশন ফি ১৪ হাজার ৮৫০ মার্কিন ডলার এবং এর ‘আউট অব স্টেট’ অর্থাৎ বাইরের দেশের শিক্ষার্থীদের জন্য টিউশন ফি হচ্ছে বার্ষিক ৪০ হাজার ৬৬২ মার্কিন ডলার।

তবে চাইলে স্কলারশিপ গ্রহণের মাধ্যমে টিউশন ফি অনেকটাই কমিয়ে এনে ঐতিহ্যবাহী এই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনার সুযোগ করে নিতে পারেন আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীরা।

যুক্তরাষ্ট্রের বাইরের অধিবাসীরা মিশিগান স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য যেসব স্কলারশিপ রয়েছে, সেগুলো হলো-

ইউ আর ওয়েলকাম হিয়ার
নামের মতোই দেশ-বিদেশের শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানাচ্ছে এই স্কলারশিপটি। বাছাই করা আন্তর্জাতিক পরিসরের আন্ডারগ্র্যাজুয়েট শিক্ষার্থীদের এ স্কলারশিপে আমন্ত্রণ জানানো হয়। আন্তঃসাংস্কৃতিক বৈচিত্র্যকে গ্রহণ করা এই শিক্ষাবৃত্তির অন্যতম উদ্দেশ্য।

বার্ষিক টিউশন ফি ২৫,০০০ মার্কিন ডলার, যা কিনা সব মিলিয়ে ৮টি সেমিস্টারের জন্য প্রযোজ্য।

ইন্টারন্যাশনাল টিউশন গ্রান্ট

যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে থাকা শিক্ষার্থীদের জন্য প্রথম বর্ষের এই স্কলারশিপটি রেসিডেন্সি স্ট্যাটাসও রয়েছে। এতে মোট ৮টি সেমিস্টারের জন্য যথাক্রমে ২৫,০০০; ২১,০০০ ও ১৮,০০০ মার্কিন ডলার অর্থায়ন করা হয়।

এই স্কলারশিপ প্রদানের সময় শিক্ষার্থীর প্রাতিষ্ঠানিক দক্ষতা, পড়াশোনার বাইরে অন্যান্য কার্যক্রমে সংযুক্ততা, আবেদনপত্রের নিবন্ধ, ইংরেজি ভাষায় দক্ষতা এবং ভৌগোলিক বৈচিত্র্য– এই মাপকাঠিগুলো মাথায় রাখা হয়।

মিশিগান স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতি বছর আসা আবেদনপত্র থেকে মাত্র ৫ শতাংশ শিক্ষার্থী এই বৃত্তিটি পেয়ে থাকেন।

এ ক্ষেত্রে আবেদনের সময়সীমার দিকে বিশেষ খেয়াল রাখতে হবে। প্রতি বছর ১ ডিসেম্বর পর্যন্ত যারা আবেদন করে থাকেন, তাদের ক্ষেত্রে স্কলারশিপ প্রাপ্তির হার বেশি।

গ্লোবাল অ্যাম্বাসেডর গ্রান্ট

প্রথম বর্ষের যে শিক্ষার্থীরা ইতোমধ্যে প্রতিভার পরিচয় দিয়েছেন কিন্তু ইন্টারন্যাশনাল টিউশন গ্রান্টের জন্য সম্পূর্ণরূপে যোগ্য বিবেচিত হতে পারেননি, তাদের জন্য এই স্কলারশিপটি। বার্ষিকভাবে ৮টি সেমিস্টারের জন্য এতে ৭ হাজার মার্কিন ডলার অর্থায়ন করা হয়। এখানেও শিক্ষার্থীর শিক্ষাগত যোগ্যতা ছাড়া অন্যান্য মাপকাঠি বিচার করে দেখা হয়।

রেড সিডার স্কলারশিপ

এটি মিশিগান স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যালামনাইদের পোষ্য বা নাতি-নাতনিদের জন্য প্রযোজ্য। এতে ৮ সেমিস্টারের জন্য বার্ষিক ১ হাজার ২৫০ ডলার অর্থায়ন দেওয়া হয়।

প্রেসিডেন্সিয়াল স্টাডি অ্যাব্রোড স্কলারশিপ

যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে এমএসইউ কর্তৃক স্পনসরকৃত বিদেশে পড়াশোনার প্রোগ্রামের জন্য এই শিক্ষাবৃত্তিটি দেওয়া হয়। এতে প্রোগ্রামের মেয়াদের ওপর নির্ভর করে ৩ থেকে ৫ হাজার মার্কিন ডলার অর্থায়ন করা হয়। এই বৃত্তিটি অবশ্যই ভর্তি হবার পরবর্তী প্রথম ৮ সেমিস্টার, নয়তো আন্ডারগ্র্যাজুয়েট ডিগ্রি সম্পূর্ণ করা পর্যন্ত ব্যয় করতে হবে।

এ ছাড়া এই বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের জন্য আরও কয়েকটি স্কলারশিপ রয়েছে, যার জন্য অনার্স কলেজে ভর্তি প্রক্রিয়ায় উত্তীর্ণ হবার যোগ্যতা থাকতে হবে।

যদিও অনার্স কলেজে ভর্তির আলাদা কোনো প্রক্রিয়া নেই, এমএসইউতে দাখিলকৃত আবেদনপত্রগুলো থেকেই এই বাছাই করা হয়ে থাকে। বাছাইয়ের প্রক্রিয়ার জন্য আলাদা কোনো প্রচেষ্টার প্রয়োজন হয় না, তবে এই স্কলারশিপগুলো সীমিতসংখ্যক–

অনার্স কলেজ এক্সিলেন্স স্কলারশিপ

মিশিগানের অধিবাসী নন, অনার্স কলেজে বাছাইকৃত এমন রেসিডেন্ট এবং আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে একটি নির্দিষ্ট সংখ্যক আবেদনকারীকে এই স্কলারশিপের জন্য বেছে নেওয়া হয়। ৮ সেমিস্টারব্যাপী এই শিক্ষার্থীদেরকে ১৩ হাজার মার্কিন ডলার অর্থায়নের যোগান দেওয়া হয়।

প্রফেসরিয়াল অ্যাসিস্টেন্টশিপ

অনার্স কলেজে বাছাইকৃত শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে আন্তর্জাতিক এবং হোমস্কুল অভিজ্ঞতা রয়েছে এমন আবেদনকারীদের স্বতন্ত্র শিক্ষাগত রেকর্ড বিচার-বিশ্লেষণ করে এই স্কলারশিপের জন্য বেছে নেওয়া হয়। প্রফেসরিয়াল অ্যাসিস্টেন্টরা সপ্তাহপ্রতি ৮-১০ কর্মঘণ্টার বিনিময়ে ৩ হাজার ৫০০ মার্কিন ডলারের একটি বার্ষিক স্টাইপেন্ড পেয়ে থাকেন। এই স্টাইপেন্ড ৪ সেমিস্টারের জন্য পুনর্বহাল করা যায়।

মিশিগান স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনার যে বিষয়গুলো সবচেয়ে জনপ্রিয়, তার মধ্যে রয়েছে ব্যবসায় শিক্ষা, ম্যানেজমেন্ট, মার্কেটিং, জীববিজ্ঞান ও বায়োমেডিক্যাল সায়েন্স, প্রকৌশল ইত্যাদি। বিজ্ঞান বিভাগের বাইরের শিক্ষার্থীদের জন্য যোগাযোগ, সাংবাদিকতা এবং সংশ্লিষ্ট প্রোগ্রাম।

এ ছাড়া সামাজিক বিজ্ঞান বিষয়ক বিষয়ও বেছে নেওয়ার সুযোগ রয়েছে এখানে।

প্রতি বছর এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে থেকে গ্রাজুয়েশনের হার ৫৯ শতাংশ এবং মিশিগান স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের সব অ্যালামনাইয়ের কর্মজীবনের দিকে নজর দিলে দেখা যায়, তাদের বার্ষিক গড় বেতন ৫৪ হাজার মার্কিন ডলারের কাছাকাছি থাকে।

আবেদনের শর্তাবলি

  • প্রাথমিক পর্যায়ে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন করার পর যোগ্য মনোনীত হলে ৬৫ মার্কিন ডলার ফি প্রদান করতে হবে।
  • সব ধরনের একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্ট অনলাইনে জমা দিতে হবে।
  • আবেদনপত্রে পছন্দের বিষয় বাছাই করতে হবে, সেটি চাইলে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে পরিবর্তন করা যাবে।
  • পড়াশোনা ব্যতীত অন্য কোনো দক্ষতা উন্নয়নের অভিজ্ঞতা থাকলে, সে সংক্রান্ত কাগজপত্রও জমা দিতে হবে।
  • ২৫০-৬৫০ শব্দের একটি নিবন্ধ জমা দিতে হবে। এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীর সৃজনশীলতা যাচাই করা হয়। নিবন্ধের বিষয় প্রতি বছর আবেদনের শর্তাবলীতে জানিয়ে দেয়া হয়।
  • এখানে কোনো ধরনের রেকমেন্ডেশন লেটার সুপারিশপত্র জমা দেবার প্রয়োজন পড়ে না। ২০২৩ সালের জন্য এ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য আবেদন স্থগিত রয়েছে, ২০২৪ সালের ফল সেমিস্টারের জন্য আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হবে চলতি বছরের আগস্ট মাসে।
You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.