সাধারণ ক্ষমা নিয়ে দেশে আসা হলো না কুয়েতপ্রবাসী দেলোয়ারের

সাধারণ ক্ষমা নিয়ে দেশে আসা হলো না কুয়েতপ্রবাসী দেলোয়ারের

কুয়েতের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিমান বাংলাদেশের বিজি৩৪৪ এর ফ্লাইটে উড়াল দেওয়ার কথা, গন্তব্য বাংলাদেশ। বিমানে ওঠার একটু আগেই মারা যান দেলোয়ার হোসেন (৫০) নামে প্রবাসী।

রোববার (৫ মে) স্থানীয় সময় রাত পৌনে ১টায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স কুয়েত টু ঢাকার ট্রাভেলস ব্যবসায়ী ইবরাহিম খলিল রিপন জানান, বাংলাদেশি একজন যাত্রী দেলোয়ার হোসেন ইমিগ্রেশন সম্পন্ন করে যখন ২১ নম্বর গেট অতিক্রম করেন এবং বিমানে পা রাখার অল্প কিছুক্ষণ মাত্র বাকি, ঠিক তখনই আকস্মিকভাবে মারা যান।

ওই যাত্রীর পরিচয় জানতে চাইলে রিপন জানান, মারা যাওয়া প্রবাসী কুয়েতে আকামাহীন ছিলেন, ফলে কুয়েতের সাধারণ ক্ষমার সুযোগে দেশে যাওয়ার পথে এই মর্মান্তিক মৃত্যু হয়।

পরে স্থানীয় প্রশাসন ঘটনাস্থলে এসে দেলোয়ার হোসেনের মরদেহ নিয়ে যায়।

প্রায় দুই যুগ আগে নোয়াখালী জেলার সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে দেলোয়ার হোসেন কুয়েতে আসেন। প্রথম দিকে তার বৈধ রেসিডেন্সি থাকলেও একটা সময় দেলোয়ার অবৈধ ‘আকামাহীন’ হয়ে পড়েন।

ফলে কুয়েতের সাধারণ ক্ষমার সুযোগে দেশে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। প্রত্যক্ষদর্শীদের ধারণা দেলোয়ার হোসেন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন।

কুয়েতে বাংলাদেশ দূতাবাসের মিনিস্টার (শ্রম) মোহাম্মদ আবুল হোসেন দেলোয়ার হোসেনের মৃত্যু নিশ্চিত করেছেন।

বাংলাদেশ দূতাবাসের জ্যেষ্ঠ এ কর্মকর্তা জানান, বর্তমানে দেলোয়ার হোসেনের মরদেহ কুয়েতের একটি হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। দেশটির আইনি প্রক্রিয়া শেষে নিহতের মরদেহ দ্রুত দেশে পাঠানো হবে।

Discover more from Beanibazar View24

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading