Beanibazar View24
Beanibazar View24 is an Online News Portal. It brings you the latest news around the world 24 hours a day and It focuses most Beanibazar.

হ্যামট্রামেক সিটির প্রাইমারি নির্বাচনে ৩ বাংলাদেশির বিজয়

যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান রাজ্যের হ্যামট্রামেক সিটির (প্রাইমারি) নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে তিন বাংলাদেশি-আমেরিকান বিজয়ী হয়েছেন। তারা চলতি বছরের ৭ নভেম্বর সিটির সাধারণ নির্বাচন বা চূড়ান্ত নির্বাচনের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার যোগ্যতা অর্জন করলেন।

বিজয়ীরা হলেন- হ্যামট্রামেক সিটির বর্তমান মেয়র প্রোটেম ও কাউন্সিলর কামরুল হাসান, কাউন্সিলর নাইম লিয়ন চৌধুরী ও মুহতাসিন সাদমান।

ওয়েইন কাউন্টি নির্বাচন কমিশনের প্রাপ্ত তথ্য থেকে জানা যায়, মঙ্গলবার (৮ আগস্ট) সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলে। রাত ১১টার দিকে ফলাফল জানা যায়। হ্যামট্রামেক সিটির প্রাইমারি ইলেকশনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন বাংলাদেশি- আমেরিকানসহ ৯ জন।

এর মধ্যে বিজয়ী হয়েছেন ৬ জন। তুমূল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচনে বর্তমান কাউন্সিলর বাংলাদেশি-আমেরিকান নাইম চৌধুরী মাত্র ৫ ভোটের ব্যবধানে ১ম হয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। যার প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ৮৫৮।

এদিকে সিটির মেয়র প্রোটেম ও কাউন্সিলর কামরুল হাসান ও মাত্র ৪ ভোটের ব্যবধানে ৪র্থ হয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। যার প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ৮০৯। আবাসন (রিয়েলেটর) ব্যবসায়ী মুহতাসিন সাদমান প্রথমবারের মতো নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে চূড়ান্ত নির্বাচনের জন্য মনোনীত হয়েছেন। যার প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ৬৮৯।

হ্যামট্রামেক সিটির সাধারণ নির্বাচনের জন্য যোগ্যতা অর্জনকারী অপর প্রার্থীরা হলেন- মোহাম্মদ আলসমিরি, লিন ব্লেসি ও নাসের সালেহ হোসাইন। উল্লেখ্য, সাধারণ নির্বাচনে ৬ জনের মধ্য থেকে নির্বাচিত তিনজন কাউন্সিলর হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

এদিকে মিশিগানের ম্যাকম্ব কাউন্টি নির্বাচন কমিশনের প্রাপ্ত তথ্য থেকে জানা যায়, ওয়ারেন সিটির ডিস্ট্রিক-১ এ ৩ জন ও ডিস্ট্রিক-২ তে ১ জন এবং কাউন্সিল এট লার্জ পদে একজন বাংলাদেশি- আমেরিকান নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও কেউ নির্বাচিত হতে পারেননি।

ওয়ারেন সিটির ডিস্ট্রিক্ট-১ এ বাংলাদেশি- আমেরিকান তিনজন প্রার্থী মো. ইসলাম, সাব্বির খান ও খাজা আফজাল হোসাইন। তারা নির্বাচিত দুই প্রার্থীর কাছাকাছিও ভোট পাননি। তবে ডিস্ট্রিক্ট-২ তে একমাত্র বাংলাদেশি-আমেরিকান কবির আহমেদ জয়ের দ্বারপ্রান্তে চলে এসেছিলেন। যিনি নির্বাচনে দ্বিতীয় হয়েছেন তার থেকে ১৮২ ভোট কম পেয়ে হেরে যান। যার প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ৯৩৮।

সিটির কাউন্সিল এট লার্জ পদে একমাত্র বাংলাদেশি- আমেরিকান খাজা সাহাব আহমেদ প্রার্থী হলেও তিনিও অন্যান্য প্রার্থী থেকে ভোটের ব্যবধানে অনেক পিছিয়ে পড়েন। যার প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ২৪০২ এবং প্রদত্ত ভোটের ৭.৩ শতাংশ।

এবার মিশিগানের এই দুই সিটির নির্বাচনে ওয়ারেন সিটিতে বাংলাদেশি আমেরিকান বেশি প্রার্থী হলেও ওয়ারেন সিটির ডিস্ট্রিক্ট- ১ এ প্রার্থিতা নিয়ে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। অনেকেই তাদের সাধুবাদ জানালেও তীর্যক কথাও শুনতে হচ্ছে প্রার্থীদের।সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কেউ কাউকে ছেড়ে দেবো না মনোভাব করে প্রার্থীতা ঘোষণা করেছিলেন এমনটাই তাদের সমর্থকরা জানিয়েছিলেন।

স্থানীয় নির্বাচন এবং মূলধারার রাজনীতিতে সুফলতা পেতে হলে ভোটাররা এবং বিজ্ঞজনেরা সমঝোতা এবং সমন্বয় করে নির্বাচন করার আহ্বান করছেন এবং হ্যামট্রামেক সিটিতে নির্বাচিতদের সাধারণ নির্বাচনে চূড়ান্ত বিজয় নিশ্চিত করার জন্য ভোটাররা আশা ব্যক্ত করছেন।

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.