Beanibazar View24
Beanibazar View24 is an Online News Portal. It brings you the latest news around the world 24 hours a day and It focuses most Beanibazar.

ওমানে ঘূর্ণিঝড়ে ৩ বাংলাদেশির মৃ.ত্যু


ঘূর্ণিঝড় শাহিনের আঘা.তে ওমানে তিন বাংলাদেশির মৃ.ত্যু হয়েছে। বুধবার (০৬ অক্টোবর) নি.হ.তদের লা.শ শনাক্ত করেছেন তাদের সহকর্মীরা।

বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এতথ্য নিশ্চিত করেছেন লক্ষ্মীপুর জেলার সদর উপজেলার পার্বতীনগরের স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মু.ক্তিযো.দ্ধা মো. সালাহ উদ্দিন ভূঁইয়া।

নি.হ.তরা হলেন- সদর উপজেলার পাবর্তীনগর ইউনিয়নের আব্দুল করিম চেরাঙ্গ বাড়ির মৃ.ত নুরুল আমিনের ছেলে শামছুল ইসলাম (৫৫), চাঁন কাজী বাড়ির শুক্কুর উল্লাহর ছেলে জিল্লাল হোসেন (৪৫) ও মিঝি বাড়ির আব্দুস শহিদের ছেলে আমজাদ হোসেন হৃদয় (২৮)। তারা সবাই একে অন্যের আত্মীয়।

চেয়ারম্যান সালাহ উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, ‘ওমানে ঘূর্ণিঝড়ে মা.রা যাওয়াদের বিষয়টি প্রশাসনকে জানানো হয়েছে। তাদের লা.শ দেশে আনার প্রক্রিয়া চলছে।’

পারিবার সূত্রে জানা গেছে, নি.হ.তরা ওমানের সাহামে উম্মে ওয়াদি লেবান নামক স্থানে খেজুর বাগানে কাজ করতেন। রোববার ঘূর্ণিঝড় শুরু হলে তাদের বাতাস ও পানির স্রোত ভাসিয়ে নিয়ে যায়। পরে ওই এলাকার লোকজন খোঁজাখুঁজির পর নি.হ.তদের ক্ষ.ত বিক্ষ.ত লা.শ উ.দ্ধার করে।

নি.হ.ত জিল্লাল হোসেনের বাবা শুক্কুর উল্লাহ জানান, তার ছেলে ওমানে খেজুর বাগানে শ্রমিক কাজ করতেন। তার নিকটাত্মীয় দুইজনও একই এলাকায় কাজ করতেন। রোববার ঝড়ের পরে থেকে তারা নিখোঁজ ছিল। ঝড়ে আসা পানি নেমে যাওয়ার পর মঙ্গলবার সকালে শামছুল ইসলাম এবং জিল্লাল হোসেনের লা.শ ও বুধবার আমজাদ হোসেন হৃদয়ের লা.শ পাওয়া যায়।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. মামুনুর রশিদ বলেন, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের মাধ্যমে নি.হ.তদের লা.শ দেশে আনার ব্যবস্থা করা হবে।

প্রসঙ্গত, রোববার ওমানে ঘূর্ণিঝড় শাহিনের কারণে ঝড়ো বাতাসের সঙ্গে তীব্র বৃষ্টিপাতে অনেক এলাকা প্লাবিত হয়। বাতাসের গতিবেগ ছিলো ঘণ্টায় ১২০ থেকে ১৫০ কিলোমিটার। ওই সময় ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে প্রায় দশ মিটার উঁচু ঢেউ তৈরি হয়। বাসিন্দাদের ওমান সরকার উপকূলীয় এলাকা থেকে সরিয়ে নিলেও মা.রা যাওয়া তিন বাংলাদেশি সেখানেই ছিলেন।

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.