আলোচিত খবরসারাদেশসোশ্যাল মিডিয়া

রাতের আঁধারে জামালপুর ছাড়লেন ডিসি, সেই নারীও উধাও







রাতের আঁধারে জামালপুর ছেড়ে অন্যত্র চলে গেছেন ওএসডি হওয়া জামালপুরের বিতর্কিত জেলা প্রশাসক (ডিসি) আহমেদ কবীর।

নারী অফিস সহকর্মীর সঙ্গে আপ’ত্তিকর আচরণের ঘটনায় তাকে ওএসডি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। রোববার দুপুর দেড়টায় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব এবিএম ইফতেখারুল ইসলাম খন্দকার স্বাক্ষরিত এক আদেশপত্রে আহমেদ কবীরকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা করা হয়।



তার স্থলে নতুন জেলা প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয় পরিকল্পনামন্ত্রীর একান্ত সচিব মোহাম্মদ এনামুল হককে। তবে এ আদেশ আসার আগেই জনরোষ আ’তঙ্কে রাতের আঁধারে জামালপুর ছেড়ে চলে যান আহমেদ কবীর।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থায় শনিবার রাত ৩টায় জামালপুর ত্যাগ করে ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে আশ্রয় নেন আহমেদ কবীর।



এদিকে আহমেদ কবীর চলে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে উধাও হয়ে গেছেন সেই নারী অফিস সহকর্মীও। সকাল থেকেই হদিস মিলছে না তার। অভিযুক্ত ওই নারী সহকর্মী নিজ থেকে আত্মগোপনে গেলেন নাকি ডিসি আহমেদ কবীরই তাকে অন্যত্র সরিয়ে রেখেছেন এ নিয়ে প্রশ্ন স্থানীয়দের।



ওই নারী সহকর্মীর অবস্থান জানতে সাংবাদিকদের সঙ্গে জামালপুর জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের সামনে সকাল থেকেই ভিড় জমিয়েছেন উৎসুক জনতা। তাই নিরাপত্তার খাতিরে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। রোববার নিয়মিতভাবেই কর্মক্ষেত্রে যোগদানের কথা ছিল নারী সহকর্মীর। তবে তাকে ডিসি অফিসে পাওয়া যায়নি।



অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রাজিব কুমার সরকার জানিয়েছেন, বিনা নোটিশে কর্মক্ষেত্রে ওই নারী অনুপস্থিত। তাকে ফোন করেও পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গত সম্প্রতি জামালপুরের ডিসির একটি আপ’ত্তিকর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটিতে ডিসি আহমেদ কবীরের সঙ্গে তার অফিসের এক নারীকর্মীকে অন্তর’ঙ্গ অবস্থায় দেখা যায়। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে খন্দকার সোহেল আহমেদ নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে জেলা প্রশাসকের আপ’ত্তিকর ভিডিওটি পোস্ট করা হয়।














Related Articles

Close