জাতীয়সারাদেশ

বিমানে স্বর্ণ চোরাচালান : মুখ খুলেছেন বিমান ক্রু মৌসুমী







হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দশ কেজি ওজনের স্বর্ণ বারসহ বৃহস্পতিবার রাবেয়া শেখ মৌসুমি নামে এক নারী ক্রুকে আটক করা হয়। তিনি ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের নারী ক্রু হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

সেই ১০ কেজি সোনা চোরাচালানে সম্পৃক্ততার বিষয়ে মুখ খুলেছেন মৌসুমি। আজ সোমবার ঢাকার মহানগর হাকিম তোফাজ্জল হোসেনের খাসকামরায় তার দেওয়া জবানবন্দি ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় লিপিবদ্ধ করেন। স্বীকারোক্তি গ্রহণ শেষে বিধিমোতাবেক মৌসুমীকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।



দুই দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আসামিকে সকালেই আদালতে হাজির করে এসংক্রান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) সফিকুল ইসলাম।

আদালত সূত্র জানায়, আসামি রিমান্ডে থাকাকালে তার নিকট শরীর থেকে উদ্ধার ৮২টি সোনার বার সম্পর্কে স্বীকার করেছে। সহযোগী অন্যদের সম্পর্কেও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে। সে আদালতে স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তি দিতে চায়। ব্যবস্থা নেওয়া হোক। এর প্রেক্ষিতে আসামিকে হাকিমের খাসকামরায় নেওয়া হয়।



উ্ল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) মাস্কাট থেকে ঢাকায় অবতরণ করা বেলা ১১টার ফ্লাইটে ছিলেন মৌসুমি। সে ফ্লাইট থেকে নেমে ডমেস্টিক টার্মিনালে গিয়ে গাড়িতে ওঠার চেষ্টা করেন। এপিবিএন তাকে চ্যালেঞ্জ করে বিমানবন্দরের এপিবিএন কার্যালয়ে নিয়ে যায়। দেহ তল্লাশি করে পকেট ও শরীরের বিভিন্ন স্থান থেকে বাদামি (ব্রাউন) স্কচটেপ দিয়ে মোড়ানো ৮২টি সোনার বার পাওয়া যায়, যার ওজন ১০ কেজি।

তাকে আটকের পর বিমানবন্দরে কর্মরত এপিবিএর এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপারেশনস অ্যান্ড মিডিয়া) আলমগীর হোসেন জানান, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে তিনি আগে থেকেই নজরদারিতে ছিলেন।














Related Articles

Close