আন্তর্জাতিক

ফ্রান্সে তীব্র দাবদাহে প্রায় দেড় হাজার লোকের মৃ’ত্যু







বৈশ্বিক উষ্ণতার কারণে প্রতিবছরই বিশ্বজুড়ে বাড়ছে তাপমাত্রা। যার বিরুপ প্রভাব পড়ছে বিভিন্ন দেশের জনজীবনের ওপর। এ থেকে বাদ যাচ্ছে না আধুনিক বিশ্বও। ইউরোপের অন্যতম দেশ ফ্রান্সে চলতি বছর গ্রীষ্মের তীব্র দাবদাহে দেশটিতে এক হাজার ৪৩৫ জনের মৃ’ত্যু হয়েছে।



রোববার ফরাসি বেতার ইন্টার রেডিওতে দেয়া এক বক্তব্যে দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী অ্যাগনেস বুজঁ এ তথ্য জানিয়েছেন। প্রচণ্ড তাপের কারণে নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে তাদের মৃ’ত্যু হয়েছে বলে জানান তিনি। মৃতদের অর্ধেকেরই বয়স ৭৫ বছরের ওপরে। – খবর বিবিসি

বুজঁ বলেন, গ্রীষ্মের তীব্র তাপদাহে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারতো। তবে মানুষের মধ্য সচেতনতা বাড়াতে সরকারের বহুমুখী প্রচারণার ফলে এ সংখ্যা কমিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে।



তিনি জানান, ফ্রান্সে জুন ও জুলাই মাসে মোট ১৮ দিন রেকর্ড তাপদাহ থাকে। এবার তাপদাহে মৃতদের মধ্যে ২৪ জুন থেকে ৭ জুলাইয়ের মধ্যে মৃ’ত্যু হয়েছে ৫৬৭ জনের। ২১ জুলাই থেকে ২৭ জুলাই পর্যন্ত মৃ’ত্যু হয়েছে আরও ৮৬৮ জনের।

গত জুনে ফ্রান্সে রেকর্ড ৪৬ সেলসিয়াস তাপমাত্রা পরিলক্ষিত হয়। জুলাইয়ে রাজধানী প্যারিসে সর্বোচ্চ ৪২ দশমিক ৬ সেলসিয়া তাপমাত্রা পরিলক্ষিত হয়েছিল।



যুক্তরাজ্য, বেলজিয়াম, জার্মানি, লুক্সেমবার্গ ও নেদারল্যান্ডের মতো ইউরোপীয় দেশগুলোতে উচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড সংরক্ষণ করা হয়। তবে ফ্রান্স ছাড়া অন্য কোনও দেশ সরকারিভাবে বছরভিত্তিক তাপদাহে প্রাণহানির সংখ্যা প্রকাশ করে না।














Related Articles

Close