আন্তর্জাতিক

লুঙ্গি পরে ট্রাক চালালে গুণতে হবে জরিমানা







১ সেপ্টেম্বর থেকে পশ্চিমবঙ্গ বাদে সারা ভারতের চালু হয়েছে নয়া মোটরযান আইন। এই আইন অনুযায়ী, মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালালে জরিমানা ২ হাজার রুপি থেকে বাড়িয়ে ১০ হাজার রুপি করা হয়েছে।

ইমারজেন্সি গাড়িকে রাস্তা না ছাড়লে ৫ হাজার রুপি জরিমানা দিতে হবে। এর আগে দিতে হতো ১ হাজার রুপি। বিনা হেলমেটে গাড়ি চালালে দিতে হবে ১ হাজার রুপি জরিমানা, পাশাপাশি তিন মাসের জন্য লাইসেন্স বাজেয়াপ্ত করা হবে।



ট্রাকচালকদের জন্য পোশাক বিধি বেঁধে দিলো ভারতের উত্তর প্রদেশের যোগী আদিত্যনাথ সরকার। যা অমান্য হলেই দিতে হবে মোটা অঙ্কের জরিমানা। নয়া মোটরযান আইনের সঙ্গেই নতুন ফরমান জারি হয়েছে।

সংবাদ প্রতিদিন জানায়, এই আইন চালু হওয়ার পর বিপাকে পড়েছেন দেশটির বাইক আরোহীরা। এবার ছাড় পেলেন না ট্রাক চালকরাও।



উত্তর প্রদেশ বিধানসভায় নয়া মোটরযান আইনের সঙ্গে একটি অতিরিক্ত সংশোধনী জুড়ে দেওয়া হয়েছে। এই সংশোধনী অনুযায়ী ফুলপ্যান্টের সঙ্গে শার্ট বা টিশার্ট পরেই ট্রাক চালাতে হবে। স্যান্ডেল নয়, পায়ে থাকতে হবে জুতা।

এই পোশাক বিধি আগেও ছিল বলে জানানো হয়েছে। তবে তা কখনো সরকারিভাবে প্রয়োগ করা হয়নি। মূলত গেঞ্জি ও লুঙ্গি পরা ট্রাকচালকদের আটকাতেই এই আইন চালু করা হয়েছে মনে করা হচ্ছে।



প্রতিবেদনে বলা হয়, সারা ভারতেই ট্রাক চালকদের পছন্দের পোশাক লুঙ্গি। আসলে দিনের পর দিন গাড়িতেই কাটাতে হয় চালক ও সহকারীদের। তাই, তাদের পছন্দের পোশাক খোলামেলা লুঙ্গি ও গেঞ্জি।

কিন্তু উত্তর প্রদেশে আর লুঙ্গি পরে ট্রাক চালানো চলবে না। স্কুল ভ্যান ও সরকারি গাড়ির চালকদের মধ্যেও এই নয়া আইন চালু করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে রাজ্যটির এএসপি (ট্রাফিক) পূর্ণেন্দু সিং বলেন, “১৯৮৯ সাল থেকেই পোশাক বিধি লঙ্ঘন করলে ৫০০ রুপি জরিমানা করার রীতি চালু ছিল। সেই জরিমানার পরিমাণ বাড়িয়ে ২ হাজার রুপি করা হয়েছে।”














Related Articles

Close