প্রবাস

ইতালিতে মানবেতর দিন কাটাচ্ছেন ভারসাম্যহীন এক সিলেটি যুবক







ইতালিতে দির্ঘদিন যাবত মানবেতর জীবনযাপন করছেন ভারসাম্যহীন এক বাংলাদেশী যুবক। তার নাম মেজবাহ উদ্দিন কয়েস (৩৩)। তার দেশের বাড়ি সিলেট মৌলভীবাজারের কুলাউড়া থানার বেড়কুড়ি গ্রামে।



ইতালির রাজধানী রোমের তরপিনাত্তারার বিভিন্ন স্থানে তাকে দেখা যায় । ইতিমধ্যে বেশকয়েকটি বাঙ্গালী কমিউনিটির সহায়তায় তাকে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হলেও স্থানীয় ডাক্তাররা মেজবাহকে সুস্থ বলে দাবি করছেন।

এছাড়াও মেজবাহকে বাংলাদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হলে স্থানীয় পুলিশ তাকে দেশে পাঠাতে অপরাগতা প্রকাশ করেন। কেননা দেশটির নিয়মানুযায়ী কেউ যদি ইচ্ছাকৃত ভাবে এইদেশ থেকে যেতে না চায় তাহলে পুলিশ তাকে পাঠাতে পারেনা।



এবিষয়ে মেজবাহর প্রতিবেশী রেজাউল করিম রিপন বলেন, মেজবাহ দির্ঘদিন যাবত এমন ভারসাম্যহীন অবস্থায় রয়েছে। ডাক্তাররা তাকে সুস্থ দাবি করছে কিন্তু তার চালচলন দেখে তাকে সুস্থ মনে হয়না। কয়েকমাস আগে মেজবাহকে দেশে পাঠানোর জন্য স্থানীয় প্রশাসনকে অনুরোধ করলে তারা মেজবাহকে জিজ্ঞাসা করলে সে দেশে যেতে অপরাগতা প্রকাশ করে ফলে পুলিশ তাকে দেশে পাঠাতে পারেনি।



মেজবাহ ২০০৬-০৭ সালের স্পন্সর ভিসায় ইতালি আসে। মেধাবি হওয়ার কারনে খুব দ্রুত দেশটির ভাষা শিখে স্থানীয় একটি রেস্টুরেন্টে ওয়েটার হিসেবে কাজ শুরু করে। কিন্তু ধীরে ধীরে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর থেকেই মেজবাহ এমন ভারসাম্যহীন হয়ে যায়।



এ বিষয়ে ইতালিতে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত আব্দুস সোবাহান সিকদার বলেন, স্থানীয় ডাক্তারদের ভাষ্যমতে মেজবাহ সুস্থ আর কোন সুস্থ মানুষ নিজ ইচ্ছায় দেশে না গেলে এখানকার আইনানুযায়ী কাউকে জোর করে দেশে পাঠানো যায় না। সুতরাং এই বিষয়ে আমাদের কিছুই করার নেই। তবে তাকে চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে পারি।
– সাইফুল ইসলাম মুন্সী, ইতালি














Related Articles

Close