জাতীয়সারাদেশ

আবরারের ছোট ভাইয়ের ওপর পুলিশের হা’মলা







বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের ছোটভাই ফায়াজকে মা’রধর করেছে পুলিশ। আজ বুধবার বুয়েট ভিসি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম আবরারদের বাড়ি কুষ্টিয়ায় গেলে এলাকাবাসীর সঙ্গে পুলিশের সং’ঘ’র্ষ বাধে। এসময় আবরারের ছোট ভাইসহ আ’হত হন তিনজন। (কালের কণ্ঠের)



কালের কণ্ঠের কুষ্টিয়ার নিজস্ব প্রতিবেদক তারিকুল হক তারিক টেলিফোনে জানান, বুয়েট ভিসি শুধুমাত্র আবরারের ক’বর জিয়ারত করতে পেরেছেন। তিনি আবরারের বাড়িতে ঢু’কতে পারেননি। বিক্ষু’ব্ধ এলাকাবাসী তাকে বাধা দেন। এসময় পুলিশের সঙ্গে এলাকাবাসীর সং’ঘ’র্ষ হয়।

এসময় আবরারের ছোট ভাই ফায়াজ, তার ফু’পাতো ভাইয়ের স্ত্রী ও আরও একজন নারী আ’হত হন বলেও তিনি জানান।



ফায়াজ বলেন, এখানকার দায়িত্বে থাকা অ্যাডিশনাল এসপি (অতিরিক্ত পুলিশ সুপার) মোস্তাফিজুর রহমান আমার বু’কে ক’নুই দিয়ে আ’ঘাত করেন এবং কালকেও যখন আমার ভাইয়ের জানাজা হয় তখন তিনি বলেছিলেন দুই মিনিটের মধ্যে জানাজা শেষ করতে হবে। কিভাবে তিনি এটা বলেন? আজ এখানে আমার ভাবি ছিল, তাঁকে বেধ’ড়কভাবে পুলিশ দিয়ে মা’রা হয়েছে।



তার কাপড়-চোপড় টেনে তাঁর শ্লী’লতা’হানি পর্যন্ত করা হয়েছে। এটা বাংলাদেশের কোন ধরনের পুলিশ?

এর আগে সকালে ছাত্রলীগ নেতাদের পি’টুনিতে মা’রা যাওয়া বুয়েট ছাত্র আবরারকে দা’ফনের এক দিন পর কুষ্টিয়ায় তার বাড়ির উদ্দেশে যান ভিসি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম।
– কালের কণ্ঠের














Related Articles

Close