সারাদেশ

আ.লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা বাবাকে চাইনিজ কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে জখম

নারায়ণগঞ্জে মাদকের টাকা না পেয়ে মা-বাবাকে চাবুক দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছেন ছাত্রলীগ নেতার ছেলে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। মামলার পর অভিযুক্ত ছেলে ফাহাদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। (সূত্রঃ জাগোনিউজ২৪.কম)

বুধবার (০৫ ফেব্রুয়ারি) ছাত্রলীগ নেতা ফাহাদের বাবা মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগ নেতা জয়নাল আবেদীন টুলু বাদী হয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় ছেলের বিরুদ্ধে এ মামলা করেন।

মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন টুলু নারায়ণগঞ্জ মহানগরের ১২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও খানপুর মুক্তিযুদ্ধ ইউনিট কমান্ডের কমান্ডার এবং সাবেক কাউন্সিলর।

মামলার এজাহারে জয়নাল আবেদীন টুলু উল্লেখ করেছেন, বিভিন্ন সময় আমার কাছে টাকা দাবি করে ছেলে ফাহাদ। তার দাবিকৃত টাকা দিতে না পারলে ঘরের বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাঙচুরসহ আমাকে এবং তার মাকে মারধর করে।

সোমবার (০৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে মাদক সেবনের জন্য টাকা দাবি করে ফাহাদ। টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে চাইনিজ কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে জখম করা হয়। এ সময় আমি মাটিতে শুয়ে পড়লে চাবুক দিয়ে এলোপাতাড়ি আঘাত করা হয়।

আমার চিৎকারে স্ত্রী নাছিমা বেগম এগিয়ে এলে তাকেও চাবুক দিয়ে পিটিয়ে জখম করা হয়। দুজনের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে আমাদের উদ্ধার করে খানপুর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এলাকাবাসী জানায়, ফাহাদ মাদকাসক্ত। প্রায় সময় নেশার টাকার জন্য মা-বাবাকে মারধর করে। লোকলজ্জায় এতদিন বিষয়টি কাউকে জানায়নি বাবা-মা। ছাত্রলীগ নেতা পরিচয়ে এলাকায় বিভিন্ন অপকর্ম করে ফাহাদ।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক জয়নাল আবেদিন বলেন, অভিযুক্ত ছেলেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বাবা বাদী হয়ে মামলা করেছেন। ওই মামলায় তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলে পাঠানো হয়েছে।
সূত্রঃ জাগোনিউজ২৪.কম

Related Articles

Close