অপরাধ চিত্রসারাদেশ

রুম ভাড়া নিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে অনৈ’তিক কাজ, জেল-জরিমানা


নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালের ফাইভ স্টার হোটেল থেকে প্রেমিক-প্রেমিকাকে আ’টক করেছে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার।

২০ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই হোটেলে অভিযান চালিয়ে তাদের আ’টক করা হয় এবং হোটেলটি সীলগালা করা হয়। সেসাথে আ’টক প্রেমিক-প্রেমিকাকে জেল ও জরিমানা প্রদান করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, অনৈতিক কাজের অভিযোগে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শহরের বাসটার্মিনাল এলাকায় অবস্থিত একটি হোটেলে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় রংপুর জেলার তারাগঞ্জ উপজেলার কেল্লাবাড়ি মুন্সিপাড়া এলাকার মৃ’ত রমজান আলীর ছেলে সোহেল রানা ওরফে রওশন আলী (২৫) ও দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার এক প্রবাসীর স্ত্রী আ’টক করা হয়।

তারা এক হাজার টাকায় রুম ভাড়া নিয়ে অনৈতিক কাজের কথা স্বীকার করেন। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সোহেল রানাকে একমাসের কারাদণ্ড ও মেয়েটিকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

মুঠোফোনে তাদের পরিচয় হয়। এরই সূত্র ধরে তারা সৈয়দপুরে আসে দেখা করার জন্য। এসময় সোহেল তার প্রেমিকা এক সন্তানের জননী ওই গৃহবধূকে নিয়ে সৈয়দপুর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালের ফাইভ স্টার আবাসিক হোটেলে নিয়ে যায়। তারা সেখানে রুম বুুকিং নিয়ে অবস্থান করার সময় স্থানীয়রা বিষয়টি সন্দেহজনক হওয়ায় সৈয়দপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমারকে জানালে তিনি তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পৌছে প্রেমিক-প্রেমিকাকে হাতে নাতে আ’টক করে তার কার্যালয়ে নিয়ে আসেন।

পরে তাদেরকে পুলিশ থানায় এনে মেয়েটির জরিমানা আদায় করে ছেড়ে দেয় এবং ছেলেটিকে নীলফামারী জেল হাজতে প্রেরণ করে।

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পরিমল কুমার সরকার বলেন, আবাসিক হোটেল থেকে অসামাজিক কাজের দায়ে আ’টক মেয়েটিকে ২ হাজার টাকা জ’রিমানা এবং ছেলেটিকে একমাসের বিনাশ্র’ম কা’রাদ’ন্ড প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া আবাসিক হোটেলটিতে তালা লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে।

Related Articles

Close