বিয়ানীবাজারমতামত

বিয়ানীবাজারে স্কুল নাকি আসমানিদের ঘর: নিলুয়া বাতাসে যেটি করে নড়বড়







সাত্তার আজাদ:: সিলেটের অন্যতম ধনী এলাকা বিয়ানীবাজারে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের স্কুল এটি। দেখতে যেন কবি জসিম উদ্দিনের আসমানিদের ঘরের মত। উপজেলার কানলী সরকারী প্রাথমিক এই বিদ্যালয়টি ২০০০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়।



সুনাই নদীর তীরে টি ন শেডের এই স্কুলে শিক্ষার্থী দেড় শতাধিক। কিন্তু ঝড় তোফানে ঘর ভেঙে পড়ার ভয়ে শিক্ষার্থীরা পালিয়ে যায় প্রাণভয়ে। এরই মধ্যে রোববার ঝড়ে স্কুল ঘরের একাংশ ভেঙে পড়ে। বাকিটা যে কখন ভেঙে পড়তে পারে তা নিয়ে শিক্ষকদের মধ্যেও আতঙ্ক রয়েছে।



মাত্র বছরদিন আগে স্কুলে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয়। এছাড়া আর তেমন কিছু পায়নি স্কুল। এলাকাবসীর তৈরি পুরনো স্কুল ঘরটি নড়বড়ে অবস্থায় রয়েছে।
অভিবাবকরা এই স্কুলে সন্তান পাঠিয়ে দুশ্চিন্তায় সময় কাটান। এমতাবস্থায় রোববার বেলা ২টার দিকে হঠাৎ ঝড় তোফান শুরু হয়। বাতাসে ঘরটি দুলতে থাকে।

শিশুরাও চিৎকার আহাজারি করতে থাকে। যাক ভাগ্যিস স্কুল ঘরের একাংশ ভেঙে ঝড় থেমে যায়। । বেঁচে যায় শিক্ষার্থীরা। তবে স্কুল ঘরটি ভেঙে পড়ার ভয় থেকেই গেল শিক্ষার্থীসহ এলাকাবসীর মনে।



সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের বাড়ি বিয়ানীবাজার। তিনি ১০ বছর শিক্ষামন্ত্রী ছিলেন। তাছাড়া বর্তমান সরকার শিক্ষাবান্ধব সরকার থাকতেও এই স্কুলের এমন অবস্থা কি করে হয় — ভাবতে অবাক লাগে। আর কি বলি। বলতেও মন কাঁদছে।














Related Articles

Close