সারাদেশ

আইসিইউ’তে লাইফ সাপোর্ট এর নামে লাশের ব্যবসা বন্ধ করুন







রাজধানীর আয়েশা মেমোরিয়াল হসপিটালসহ বিভিন্ন প্রাইভেট হাসপাতালের আইসিইউ’তে লাইফ সাপোর্ট এর নামে প্রতারণার মাধ্যমে লাশের ব্যবসা করার এক ভয়ংকর অভিযোগ এনেছেন ভূক্তোভোগি এক পূত্র হারা পিতা নাসির উদ্দিন। শুক্রবার(২১ এপ্রিল) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে তিনি এ অভিযোগ করেন। রাজধানীর আয়েশা মেমোরিয়াল হসপিটালসহ বিভিন্ন প্রাইভেট হাসপাতালের আইসিইউ’তে লাইফ সাপোর্ট এর নামে প্রতারণার মাধ্যমে লাশের ব্যবসা বন্ধের দাবিতে মো. নাসির উদ্দিন ও তার পরিবার এ মানববন্ধন আয়োজন করে।



প্রধানমন্ত্রীর কাছে আইসিইউ(ইনসেন্টিভ কেয়ার ইউনিট) এর নামে প্রতারণার মাধ্যমে লাশের ব্যবসা বন্ধের অনুরোধ জানিয়ে পূত্র হারা পিতা মো. নাসির উদ্দিন বলেন, ‘আমি একজন হতভাগ্য পিতা। আমার নাম মো. নাসির উদ্দিন। আমার বড় ছেলে শুভ উদ্দিন। সে ৫(পাঁচ) বৎসর বয়স থেকে ডিউছিনি মাসকুলার ডিসট্রফি(ডিএমডি) রোগে আক্রান্ত হয়েছে। তখন থেকেই বাংলাদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে তার উন্নত চিকিৎসা করিয়ে আসছি।



কিন্তু কিছুতেই তার কোনো অগ্রগতি হচ্ছিলনা। গত রবিবার ১৬ এপ্রিল’ তারিখে আমার পুত্র গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে আয়েশা মেমোরিয়াল হসপিটালে ভর্তি করাই। হাসপাতালে ১দিন পর আমার ছেলে মৃত্যুবরণ করেন। কিন্তু চিকিৎসকরা আমার ছেলের মৃত্যুর খবর না জানিয়ে তাকে আইসিইউ লাইফ সাপোর্টে নিয়ে যায়। সেখানে ২দিন পর গত মঙ্গলবার সকালে ডাক্তাররা আমাকে জানায় আমার ছেলে মৃত্যুবরণ করেছে।

পরবর্তীতে ডাক্তারের সাথে আমার এক পর্যায়ে তর্কাতর্কি ও বাক বিতন্ডা সৃষ্টি হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আমাকে ১লক্ষ টাকার একটি বিল ধরিয়ে দেয়। এক পর্যায়ে আমার কাছে যা ছিল তা দিয়ে হাসপাতালে টাকা দিয়ে আমার ছেলেকে নিয়ে আসি। আমি ডেথ সার্টিফিকেট চাইলে তারা দিতে অস্বীকার করেন।’



তিনি আরও বলেন, ‘ অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় আমার আরেকটি ছেলে সিয়াম উদ্দিন, বয়স ১৩ বৎসর। সেও তার বড় ভাইয়ের মত ৫(পাঁচ) বছর থেকে ডিউছিনি মাসকুলার ডিসট্রফি(ডিএমডি) রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েছে। বাংলাদেশের কোন হাসপাতালে এই রোগের চিকিৎসা নাই যে আমার ছেলেকে সুস্থ করবে।’



প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘ সর্বশেষে আমি আপনাদের কাছে ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট একটি অনুরোধ করছি এই রোগের চিকিৎসা যেন বাংলাদেশে হয়। আর যেন আমার মতো কোন পিতা সন্তান হারা না হয়। আর যেন চিকিৎসার নামে কোন রোগীকে আইসিইউতে রেখে প্রতারণা যেন না হয়। আমি দেশবাসীর কাছে কামনা করছি।’

পুত্রহারা পিতা মো. নাসির উদ্দিনের আরেক ছেলে সিয়াম উদ্দিন, স্ত্রী সাহিনুর বেগম, শ্যালিকা আমেনা বেগম মনি এসময় উপস্থিত ছিলেন।

Related Articles

Close