সিলেট

সিলেটে স্বেচ্ছাসেবক লীগ কর্মী খুন: পরিকল্পিত বললেন ভাই







সিলেট নগরীর বনকলাপাড়ায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ কর্মী দুদু মিয়াকে পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছে বলে দাবী করেছেন তার ভাই হাসিম খান।

হাসিম খান বলেন- বুধবার রাত পৌণে ১১টার দিকে সাদিয়া টেলিকম নামক দোকানে দুদু মিয়ার উপর হামলা চালায় ১০-১২ জন লোক। এই দোকানটির মালিক দুদু মিয়া নিজেই। হামলার পূর্বে বিদ্যুৎ অফিসে ফোন করে হামলাকারীরা বিদ্যুৎ বন্ধ রাখার জন্য বলে।



হামলায় যখন দুদু মিয়া মৃত্যুর মুখে তখন তারা তাকে টেনে দোকান থেকে গোলপামিয়া পয়েন্টে নিয়ে যায় এবং মসজিদের মাইকে ঘোষণা দেয় সাদিয়া টেলিকমে ডাকাত পড়েছে। ডাকাতের খবর শুনে এলাকাবাসী বের হয়ে দেখেন দুদু মিয়াকে মেরে ফেলে রাখা হয়েছে।



তিনি আরো বলেন- হামলার পূর্বে তার আরেক ভাই জুয়েল খান দোকানে ছিল। হামলার সময় সে দৌড়ে পালিয়ে জীবন বাঁচায়। সে হামলাকারীদের মধ্যে ৪ জনকে চিনতে পেরেছে বলে জানান তিনি। তারা হচ্ছে- ছাত্রদল নেতা কালা জামাল, বেলাল, শাহ আলম ও জামায়াতের রিপন।

দুদু মিয়া স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মী হওয়ায় ছাত্রদল ও জামায়াতের কর্মীরা পরিকল্পিতভাবে খুন করেছে বলে দাবী তার।



এ ব্যপারে এয়ারপোর্ট থানার ওসি শাখাওয়াত হোসেন বলেন- লাশ এখনো পোস্টমর্টেম করা হচ্ছে। নিহত দুদু মিয়ার বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। তবে পরিবার এ বিষয়ে কোন অভিযোগ দিলে তা তদন্ত করা হবে। এছাড়াও ঘটনার ব্যপারে তথ্য সংগ্রহ করছে পুলিশ। তদন্ত করে বিস্তারিত জানা যাবে।



এদিকে, বুধবার রাতেই দুদু মিয়ার লাশ উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ। পোস্টমর্টেম শেষে তার লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

লাশ পাওয়ার পর জানাযা ও দাফনের সময় ঠিক করা হবে বলে জানিয়েছেন নিহত দুদু মিয়ার ভাই হাসিম খান।
– সিলেটভিউ২৪ডটকম














Related Articles

Close