আন্তর্জাতিক

ভারতীয় পরীক্ষায় ইসরাইলি ক্ষেপণাস্ত্র ব্যর্থ হওয়ায় চুক্তি বাতিল







একজন মানুষের পক্ষে সহজে বহনীয় ট্যাংকবিধ্বংসী গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্র নির্মাণের কথা বলে ইসরাইলের সঙ্গে একটি চুক্তি বাতিল করেছে ভারত।
এর আগে গত বছর ইসরাইলের স্পাইক অ্যান্টি-ট্যাংক গাইডেড মিসাইলের(এটিজিএম) পরীক্ষা চালিয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী।



কিন্তু পরীক্ষায় পাশ করতে পারেনি ইসরাইলি ট্যাংক। এতে রাফায়েলের সঙ্গে পাঁচশ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি বাতিল করা হয়েছে। খবর স্পুটনিকের

সূত্র জানায়, গত গ্রীষ্মের ওই পরীক্ষার সময় বিভিন্ন ক্ষেত্রে ওই ক্ষেপণাস্ত্রটির পরীক্ষা ব্যর্থ হয়েছে। এর আগে খবরে জানা গেছে, ৩২১টি লাঞ্চার, আট হাজার ৩৫৬টি ক্ষেপণাস্ত্র ও ১৫টি সিমিউলেটর ক্রয় চুক্তি বাতিল করা হয়েছে।

ভারতীয় প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা(ডিআরডিও) দেশীয়ভাবে অস্ত্র উৎপাদনের প্রতি জোর দিয়েছে। তারা ২০২০ সাল নাগাদ একজন মানুষের পক্ষে বহনীয় তৃতীয় প্রজন্মের ট্যাংকবিধ্বংসী গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্র নির্মাণের প্রত্যয়ের কথা জানিয়েছে।



গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, এটিজিএম ব্যবস্থার প্রযুক্তি হস্তান্তরের কোনো প্রয়োজন নেই। তখনকার প্রতিরক্ষামন্ত্রী মনোহার পারিকরের গঠন করা একটি বিশেষজ্ঞ প্যানেলের সুপারিশে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল।

পরবর্তী সময়ে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহুর নয়াদিল্লি সফরের সময় তাকে বিষয়টি জানানো হয়। চলতি বছরের মার্চে ভারতের ন্যাগ এটিজিএমের সফল পরীক্ষা হয়েছে। নিজস্ব প্রযুক্তির এই সফলতায় ভারতীয় সেনাবাহিনীর ভেতর নতুন প্রত্যাশা জাগিয়েছে।











Related Articles

Close