ওমানে সাইক্লোনে ছয়জনের মৃত্যু, সিলেটের ৩ জন নিখোঁজ

0

বিয়ানীবাজার ভিউ২৪ ডটকম, ৩০ মে ২০১৮,

ওমানের দক্ষিণাঞ্চলীয় সালালাহ’য় শুক্রবার সাইক্লোন মেকুনুর আঘাতে কমপক্ষে ছয়জন নিহত হয়েছেন। এর আগে সাইক্লোনটির প্রভাবে ইয়েমেনের সোকোট্রা দ্বীপের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। খবর দ্য ন্যাশনালের।

ওমানের সালালায় বয়ে যাওয়া ঘূর্ণিঝড়ের পর থেকে সুনামগঞ্জের সহোদরসহ তিন জন নিখোঁজ রয়েছেন। গত ২৬ মে মধ্যপ্রাচ্যের ওমানের সালালা শহরেরর উপর দিয়ে বয়ে যায় ঘূর্ণিঝড়। এ ঝড়ের পর থেকে বাংলাদেশের সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলার ৩ জন নিখোঁজ হন।

নিখোঁজরা হলেন সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের নোয়াগাও গ্রামের আব্দুর রজাক মিয়ার ছেলে মো. শামীম আহমদ (৩০), তার ছোট ভাই মো. হেলাল মিয়া (২৪) ও তাদের বোনের জামাই একই গ্রামের আব্দুল মনাফের ছেলে মো. ছুরুক মিয়া।

ওমানে অবস্থানরত বাংলাদেশি কোন সহৃদয়বান ব্যাক্তি তাদের কোন খোঁজ পেয়ে থাকলে নিখোঁজ ব্যক্তির চাচাত ভাই মাসুম (বাংলাদেশ) +৮৮০১৭৩৬ ৯০৭১২৩ মোবাইল নাম্বারে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

ইয়েমেনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সোকোট্রা দ্বীপে ইয়েমেনি, ভারতীয় ও সুদানিজসহ অন্তত ৪০ জন লোক নিখোঁজ রয়েছে। সাইক্লোনের প্রভাবে তাৎক্ষণিক বন্যায় হাজার হাজার গবাদি পশু ভেসে গেছে। একইসঙ্গে দ্বীপে বিদ্যুৎ ও যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।
আবহাওয়াবিদরা সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন যে, মেকুনু আরও শক্তিশালী হচ্ছে। এটি যখন আরব উপদ্বীপের মূল ভূখণ্ডে আঘাত করবে এর প্রভাব হবে ‘ব্যাপক’।

আজ শনিবার সালালাহ’য় সাইক্লোনটি আঘাত হানবে বলে কথা রয়েছে। সালালাহ ওমানের তৃতীয় বৃহত্তম শহর এবং এখানে প্রায় দুই লাখ লোকের বাস।

তবে শুক্রবার সকাল থেকেই সালালাহ’র অবস্থার অবনতি হতে থাকে।সকাল থেকে ঝড়ো বাতাস এবং বৃষ্টিপাত বাড়তে থাকে।
রয়্যাল ওমান পুলিশ টুইটারে জানিয়েছে, সাইক্লোনের প্রভাবে একটি দেয়াল ধসে পড়লে ১২ বছরের এক মেয়ের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে সাইক্লোন মেকুনুর ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কায় সমুদ্রসৈকত ছেড়ে চলে গেছেন বহু পর্যটক। অন্যদিকে সালালাহ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

সাইক্লোন মেকুনু সরাসরি সংযুক্ত আরব আমিরাতে আঘাত হানবে না। তবে সাইক্লোনটির প্রভাবে ঝড়ো বাতাসসহ বৃষ্টিপাত হতে পারে। সোকোট্রা দ্বীপের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার ১৭ জন নিখোঁজ হয়েছে। গভর্নর রামজি মাহরোস পরে বলেছেন, আমরা তাদের মৃত বলে বিবেচনা করছি।

Leave A Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.