বাতাসে গায়ের কাপড় সরে যাওয়ায় মামলা, ভয়ে দেশ ছাড়লেন সৌদি নারী

0

বিয়ানীবাজার ভিউ২৪ ডটকম, ২৯ জুন ২০১৮,

সৌদি আরবে নারীদের গাড়ি চালানোর ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা আনুষ্ঠানিকভাবে উঠিয়ে নেয়া হয় দু’দিন আগে। এ বিষয়ে নিজের চ্যানেলের জন্য রিপোর্ট করতে গিয়ে লাইভে যুক্ত হয়েছিলেন রিপোর্টার শিরিন আল রিফায়ী। শিরিন দুবাই ভিত্তিক চ্যানেল ‘আল আন টিভি’র হয়ে কাজ করেন। লাইভে যুক্ত হয়ে এই নারী সাংবাদিক একটি রাস্তায় দাঁড়িয়ে কথা বলছিলেন। তার গায়ে লম্বা সাদা রঙের আবায়া এবং মাথায় হিজাব। হঠাৎ করে ধমকা বাতাসে শিরিনের আবায়ার (বোরকার মতো গাউন) সামনের অংশ কিছুটা খোলে যায়। এতে তার ভেতরে থাকা সেলোয়ার দেখা যাচ্ছিল।

অপরাধ এটুকুই। অনিচ্ছাকৃতভাবে বাতাসে গায়ের কাপড় একটু সরে যাওয়া। তাতেই শিরিনের ওপর ক্ষেপেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। অভিযোগ আনা হয়েছে, ‘অশালীন পোশাক পরা’র। তার বিরুদ্ধে দায়ের করা অভিযোগে বলা হয়েছে, সাংবাদিক সৌদি আরবে প্রচলিত নারীদের ড্রেসকোড লঙ্ঘন করেছেন।

সৌদি জেনারেল কমিশন অব অডিও ভিজ্যুয়াল মিডিয়া এর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বিষয়টি সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর তাদের দৃষ্টি আকৃষ্ট হয়েছে

এদিকে এই অভিযোগে শিরিনের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হওয়ার পর স্ন্যাপচ্যাটে তিনি একটি বিমান টিকেট ও নিজের পাসপোর্টের ছবি শেয়ার করেছেন। এর মাধ্যমে বুঝিয়েছেন, তিনি দেশ ছাড়ছেন।

সৌদি সংবাদমাধ্যম আজেল নিউজকে শিরিন বলেছেন, ‘আমি শালীন পোশাকই পরেছিলাম। আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে সে বিষয়ে সত্যটা আল্লাহই প্রকাশ করবেন।’ আজেল নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সৌদি ছেড়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতে গেছেন তিনি।

Share.

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.