চোখের সামনে সব পুড়ে ছাই হয়ে যাচ্ছে, আজান দিচ্ছেন যুবক (ভিডিও)

0

ভারতের কলকাতার ক্যানিং স্ট্রিটের বাগরি মার্কেটে শনিবার ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। রাত আড়াইটার দিকে শুরু হওয়া এ দুর্ঘটনায় মার্কেটের ছয়তলা পর্যন্ত পুড়ে যায়।

ফায়ার সার্ভিসের ৪০টি ইউনিট একযোগে কাজ করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের সঙ্গে বহু স্বেচ্ছাসেবী কাজ করে। এর মধ্যে স্থানীয় মুসলমানরাও অংশ নেয়।

শনিবার বেলা ১২টার দিকে যখন সবাই আগুন নেভাতে ব্যস্ত তখন ব্যতিক্রমী এক দৃশ্য দেখতে পান অনেকে। স্থানীয় মুসলিম যুবক মুহাম্মদ সালমান আগুন থামাতে আজান দিতে থাকেন।

অসময়ে আজানের ধ্বনি শুনে অনেকে এগিয়ে এসে দেখতে পান আজানরত সালমানকে। সেটি আবার ছিল ফজরের আজান। কিন্তু সালমান বেলা ১২টার সময় কেন আজান দিচ্ছেন; আবার সেটি কেন ফজরের আজান তা কেউ বুঝতে পারেননি।

আজান শেষ হবার পর সালমানের কাছে জানতে চাইলে উপস্থিত স্বেচ্ছাসেবীদের তিনি বলেন, চোখের সামনে দেখছিলাম সব শেষ হয়ে যাচ্ছে। ভোরের আজানে সব থেকে বেশি শক্তি আছে। সবচেয়ে বেশি পবিত্র। তাই দোয়া করছিলাম যদি আল্লাহ বৃষ্টি এনে দেন। তাহলে হয়তো তাড়াতাড়ি আগুন নিভতে পারে।

তিনি বলেন,আমার বন্ধুদের দোকান আছে ওখানে। তাছাড়া আমি এই এলাকায় গত ৩৫ বছর ধরে থাকি। সবাইকেই জানি চিনি। সবার জন্যই দোয়া করছিলাম।

ভিডিওটি দেখতে চাইলে এখানেই ক্লিক করুন..

Comments are closed.