’আমি মারলে ওই মহিলা বেঁচে থাকতেন বলে মনে হয় না’

0

চলচ্চিত্রের চেয়ে বলিউড এখন সরব অন্য বিষয় নিয়ে। কয়েক দিন আগে অভিনেতা নানা পটেকরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ তুলেছেন অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত।

অন্যদিকে একই অভিযোগে কঙ্গনা রানাউত অভিযুক্ত করেছেন পরিচালক বিকাশ বহেলকে। এই দুই অভিযোগের জেরে আপাতত উত্তাল বলিউড। এখন বলি পাড়ার একটা বড় অংশ অভিনেত্রীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন প্রকাশ্যেই। আবার কেউ বিষয়টি সম্পূর্ণ এড়িয়ে গিয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে সালমান খানের একটি পুরনো ভিডিও হলো ভাইরাল।

সালমান খানের সঙ্গে ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের সম্পর্ক এক সময় ওপেন সিক্রেট ছিল বলি দুনিয়ায়। প্রায় সকলেই তাদের প্রেমের খবর জানতেন। কিন্তু সে সম্পর্কে ভাঙন ধরে। সে সময় সালমানের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ তুলেছিলেন ঐশ্বরিয়া। সত্যিই কি ঐশ্বর্যর গায়ে হাত তুলেছিলেন সালমান?

সে সময় এক সাক্ষাত্কারে এই প্রশ্নই করা হয়েছিল সালমানকে। তার উত্তরে ভাইজান যা বলেছিলেন সেই ভিডিও এতদিন পর ফের সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হলো।

ওই প্রশ্নের উত্তরে সে দিন সালমান বলেছিলেন, ‘‘ওই মহিলা তো বলছেন আমি মেরেছিলাম। এক সাংবাদিক অনেক বছর আগে এই প্রশ্নই করেছিলেন। সেটা শুনে আমি টেবিল ভেঙে ফেলেছিলাম…।আমি যদি কাউকে আঘাত করি, সেটা তো মারপিট হবে। আমি রেগে যাব। জোরে মারব। সেটা হলে ওই মহিলা বেঁচে থাকতেন বলে মনে হয় না।’’

কিন্তু ঐশ্বরিয়ার অভিযোগ ছিল, সালামন মদ্যপ। বলিউডে অন্য সহকর্মীদের সঙ্গে তার সম্পর্ক আছে ভেবে নাকি ঐশ্বর্যকে সন্দেহ করতেন। সালমান মানসিক এবং শারীরিক ভাবে তাকে হেনস্থা করেছিলেন বলেও জানিয়েছিলেন সাবেক বিশ্ব সুন্দরী।

Comments are closed.