Beanibazar View24
Beanibazar View24 is an Online News Portal. It brings you the latest news around the world 24 hours a day and It focuses most Beanibazar.

যুক্তরাষ্ট্রে নাগরিকত্ব পাওয়ার নিয়মকানুন


আমেরিকায় নাগরিকত্বের আবেদন করতে হলে আবেদনকারীকে বেশ কিছু শর্ত পূরণ করতে হয়। আমরা আজ আলোচনা করব কারা, কখন কীভাবে নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আবদেনর সঙ্গে কী কী তথ্যপ্রমাণ, কাগজপত্র থাকতে হবে।

কারা নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতে পারবে
আমেরিকার নাগরিকেরা যে সব অধিকার ভোগ করেন তার মধ্যে রয়েছে, ভোট দেওয়ার অধিকার, পরিবারের অন্য সদস্যদের জন্য গ্রিনকার্ডের আবেদন করতে পারা এবং ফিরে আসার অধিকার না হারিয়ে আমেরিকার বাইরে যত দিন ইচ্ছা বসবাসের অধিকার।

ন্যাচারালাইজেশনের মাধ্যমে নাগরিক হওয়ার জন্য একজন আবেদনকারীকে অবশ্যই গ্রিনকার্ডধারী হতে হবে এবং নিম্নে উল্লেখিত শর্তগুলো পূরণ করতে হবে—

আবেদনের যোগ্যতা
ন্যাচারালাইজেশনের মাধ্যমে আমেরিকার নাগরিকত্বে জন্য আবেদন করতে হলে নিম্নলিখিত বিষয়গুলোর কোনো একটি আপনার জন্য প্রযোজ্য হতে হবে—

• আপনি যদি কমপক্ষে পাঁচ বছর ধরে আমেরিকার গ্রিনকার্ডধারী হন।
• আপনার স্বামী/স্ত্রী যদি কমপক্ষে তিন বছর ধরে মার্কিন নাগরিক হয় এবং আপনি যদি তার সঙ্গে কমপক্ষে তিন বছর বৈবাহিক সূত্রে আবদ্ধ থেকে একত্রে বসবাস করেন।

• আপনার জন্য যদি ইমিগ্রেশন অ্যান্ড ন্যাশনালিটি অ্যাক্টের ৩১৯(বি) ধারা প্রযোজ্য হয় অর্থাৎ আপনার মার্কিন নাগরিক স্বামী/স্ত্রী যদি আমেরিকার বাইরে কোনো স্পেসিফিক এমপ্লয়মেন্টে নিয়মিতভাবে এঙ্গেজড থাকে।
• অথবা আপনি যদি কোয়ালিফাইং মিলিটারি সার্ভিসের বেসিসে আবেদন করতে চান।

কখন আবেদন করবেন
ন্যাচারালাইজেশনের মাধ্যমে আমেরিকার নাগরিকত্বের জন্য কখন আবেদন করবেন তা সঠিকভাবে নিরূপণ করতে হলে নিম্নলিখিত বিষয়গুলো আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে—

• তিন বছর অথবা পাঁচ বছর যে সময়টা গ্রীষ্মকাল নিয়ে কাটিয়ে তারপর আপনি ন্যাচারালাইজেশনের আবেদন করছেন, সে সময় আপনি একটানা এক বছরের বেশি আমেরিকার বাইরে বসবাস করেননি।

• ন্যাচারালাইজেশনের আবেদন করার সময় আপনি ওই তিন অথবা পাঁচ বছরের কমপক্ষে অর্ধেক সময় সশরীরের আমেরিকায় ছিলেন।
• আমেরিকার যে অঙ্গরাজ্য থেকে আপনি আবেদন করছেন, আবেদন করার আগে সেই অঙ্গরাজ্যে আপনি কমপক্ষে তিন মাস বসবাস করেছেন।

এর বাইরে আরও যেসব বিষয় আপনাকে প্রমাণ করতে হবে—

• আপনার বয়স ১৮ বছরের বেশি।
• আপনার গুড মোরাল ক্যারেক্টার (উত্তম নৈতিক চরিত্র) রয়েছে।
• কিছু ব্যতিক্রম বাদে যা এই লেখার পরবর্তীতে উল্লেখ রয়েছে—আপনি ইংরেজি ভাষা বলতে, পড়তে ও লিখতে জানেন, আমেরিকার ইতিহাস ও সরকারের বিষয়ে একটি পরীক্ষায় অবতীর্ণ হয়ে আপনি উত্তীর্ণ হতে পারবেন।
• আপনি সর্বাবস্থায় আপনি সংবিধানের প্রতি অনুগত থাকবেন।

আবেদনের প্রক্রিয়া
ফরম এন-৪০০ নির্ভুলভাবে পূরণ করে আপনাকে আবেদন করতে হবে। এর সঙ্গে আপনাকে গ্রিনকার্ডের উভয় পাশের কপি, দুই কপি ছবি ও ৭২৫ মার্কিন ডলার ফি সংযুক্ত করতে হবে। তবে আপনার বার্ষিক হাউসহোল্ড ইনকাম যদি আমেরিকার কেন্দ্রীয় পভার্টি গাইড লাইনের ১৫০ শতাংশের কম হয় অথবা আপনি যদি স্বাস্থ্যসেবা, খাদ্য সহায়তা বা আবাসনের মতো কোনো একটি মিনস-টেস্টেড বেনিফিট পান, তাহলে একটি আই-৯১২ ফরম নির্ভুলভাবে পূরণ করে প্রয়োজনীয় প্রমাণ সংযুক্ত করে ফরম এন-৪০০–এর সঙ্গে বিনা মূল্যে জমা দিতে পারবেন।
প্রযোজ্য ক্ষেত্রে আপনার বিয়ের কাবিননামা সংযুক্ত করতে হতে পারে।

আবেদনের কয়েক মাস পরে প্রথমে আপনাকে ফিঙ্গার প্রিন্টিং ও পরে ইন্টারভিউয়ের জন্য ডাকা হবে। ইন্টারভিউয়ের আগেই ইউএসসিআইএস সতর্কভাবে আপনার ব্যাকগ্রাউন্ড চেক করবে। যদি কোনো সমস্যা তারা খুঁজে না পায়—যেমন আপনি গ্রিনকার্ডটি নেওয়ার সময় অথবা অন্য কোনো সময় নাম পরিবর্তনসহ কোনো রকম প্রতারণা আশ্রয় নেননি অথবা আমেরিকার বাইরে নির্ধারিত সময়ের বেশি বসবাস করে আপনার স্থায়ী আবাসন ইতিমধ্যে পরিত্যাগ করেননি, তখন তারা আপনাকে শপথ অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার জন্য অ্যাপয়েন্টমেন্ট দিয়ে দেবে।

পরীক্ষা না দিয়ে কী করে সম্ভব
যদি আপনার এমন কোনো ফিজিক্যাল অথবা ডেভেলপমেন্টাল ডিজঅ্যাবিলিটি থাকে যার জন্য আপনি আপনার ইংরেজি ভাষার দক্ষতা এবং সিভিক বিষয়ে জ্ঞানের ডেমন্সট্রেশন করতে পারছেন না, তখন আপনাকে আপনার চিকিৎসক কর্তৃক ফরম এন-৬৪৮, মেডিকেল সার্টিফিকেশন ফর ডিজঅ্যাবিলিটি এক্সেম্পশন পূরণ করে জমা দিতে হবে। এসব ক্ষেত্রে আপনাকে কোনো রকম পরীক্ষা ছাড়াই নাগরিকত্ব প্রদানের আইন রয়েছে।

আর দুটি ক্ষেত্রে আপনি ইন্টারভিউয়ের সময় যে টেস্ট হয়, তা আপনার মাতৃভাষায় দিতে পারবেন

• আপনার বয়স যদি ৫০ বছরের বেশি হয় এবং আপনি যদি আমেরিকায় ২০ বছরের বেশি সময় গ্রীষ্মকাল নিয়ে বসবাস করে থাকেন।
• আপনার বয়স যদি ৫৫ বছরের বেশি হয় এবং আপনি যদি আমেরিকায় ১৫ বছরের বেশি সময় গ্রীষ্মকাল নিয়ে বসবাস করে থাকেন।
আপনার বয়স যদি ৬৫ বছরের বেশি হয় এবং আপনি যদি আমেরিকায় ২০ বছরের বেশি সময় গ্রীষ্মকাল নিয়ে বসবাস করে থাকেন, সে ক্ষেত্রে আপনার জন্য একটি সহজ সংস্করণের (সিমপ্লিফাইড ভার্সন) টেস্টের ব্যবস্থা করা হবে।

(এই নিবন্ধ কোনোরকম আইনি পরামর্শ নয়। এটি কেবল ইউএসসিআইএস ও মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের ওয়েবসাইটে প্রদর্শিত এ সংক্রান্ত তথ্যের সন্নিবেশ মাত্র)

ভিসা সম্পর্কিত বার্তা
পরিবারভিত্তিক এবং চাকরিভিত্তিক ভিসা প্রদানের বার্ষিক সংখ্যা কংগ্রেস কর্তৃক সীমাবদ্ধ। এই ক্যাটাগরির আবেদনকারীদের সাক্ষাৎকার নির্ধারিত হয় যদি তাঁদের অগ্রাধিকার তারিখ হালনাগাদ থাকে ও ভিসার সংখ্যা বর্তমান থাকে। যদিও সম্ভাবনা আছে, অগ্রাধিকার তারিখের পরিবর্তন হতে পারে এবং সাক্ষাৎকারের সময় ভিসার সংখ্যা আর বর্তমান নাও থাকতে পারে। আপনার ক্যাটাগরির ভিসার সংখ্যা যদি বর্তমান না থাকে, তবুও আপনার সাক্ষাৎকার যথা সময়ে হবে, তবে আপনার ভিসা ততদিন পর্যন্ত ইস্যু হবে না, যতদিন পর্যন্ত অগ্রধিকার তারিখ হালনাগাদ হয় এবং নতুন ভিসার সংখ্যা বর্তমান হয়। সকল অভিবাসী ভিসা আবেদনকারীগণ তাঁদের অগ্রাধিকার তারিখের অগ্রগতি সম্পর্কে জানার জন্য পররাষ্ট্র দপ্তরের ওয়েবসাইটে (https://bit.ly/2EfaUuN) ভিসা বুলেটিন দেখতে পারেন।

F1 : ২২ আগস্ট ২০১১: (আমেরিকান নাগরিকদের অবিবাহিত ছেলে/মেয়েদের জন্য)
F2A : ৮ নভেম্বর ২০১৬: (এলপিআর ব্যক্তিদের স্বামী বা স্ত্রী এবং ২১ বছরের কম বয়সী সন্তানদের জন্য)
FX : ১৫ অক্টোবর ২০১৬: (F2A কেইসে যাদের অগ্রাধিকার তারিখ পুরোনো)
F2B : ১৫ মার্চ ২০১২: (এলপিআর ব্যক্তিদের অবিবাহিত ছেলে/মেয়েদের জন্য)
F3 : ১৫ আগস্ট ২০০৬: (মার্কিন নাগরিকদের বিবাহিত ছেলে/মেয়েদের জন্য)
F4 : ২২ মে ২০০৫: (মার্কিন নাগরিকদের ভাই/বোন ও তাদের স্ত্রী/স্বামী এবং ২১ বছরের কম বয়সী সন্তানদের জন্য)
E3 : চলতি (দক্ষ কর্মী ও তাদের স্ত্রী/স্বামী এবং ২১ বছরের কম বয়সী সন্তানদের জন্য)
EW : চলতি (অদক্ষ কর্মী ও তাদের স্ত্রী/স্বামী এবং ২১ বছরের কম বয়সী সন্তানদের জন্য)

লেখক: ব্যারিস্টার-অ্যা-ল’, নিউইয়র্ক প্রবাসী
সেল: (৯২৯)৩৯১-৬০৪৭; ইমেইল: expa.expe@gmail.com

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.