আন্তর্জাতিক

রুটির দাম বৃদ্ধি করায় ক্ষমতা হারালেন সুদানের প্রেসিডেন্ট







রুটির দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে শুরু হয়েছিল বিক্ষোভ। সেই বিক্ষোভ রুপ নেয় সরকারবিরোধী আন্দোলনে। শেষ পর্যন্ত ক্ষমতা হারাতে হয়েছে প্রেসিডেন্টকে। বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) পদত্যাগ করেছেন সুদানের প্রেসিডেন্ট ওমর আল-বশির।

মধ্যপ্রাচ্যের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, সুদানে চলমান আন্দোলনের প্রেক্ষিতে দেশটির প্রেসিডেন্টকে ক্ষমতাচ্যুত করেছে সেনাবাহিনী।

বৃহস্পতিবার দেশটির রাজধানী খার্তুমের রাস্তায় সেনাবাহিনীর ট্যাঙ্ক টহল দিতে শুরু করেছে। সরকারি সূত্রগুলো বলছে, প্রেসিডেন্ট বশিরকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।



রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দেশটির সেনাবাহিনী শিগগিরই গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা দেবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। গত কয়েক মাস ধরে বশিরবিরোধী বিক্ষোভ করে আসছে দেশটির মানুষ।

টেলিভিশনের একজন উপস্থাপক বলেছেন, শিগগিরই সুদানের সেনাবাহিনী গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা দেবে। এ জন্য অপেক্ষা করুন। তবে এ ব্যাপারে বিস্তারিত কোনো তথ্য দেননি তিনি।

এই ঘোষণার জন্য রাজধানী খার্তুমের রাস্তায় হাজার হাজার মানুষ অপেক্ষা করছেন। রাজধানীতে সেনাবাহিনীর অন্তত দুটি ট্যাঙ্ক টহল দিতে দেখা গেছে; এর মধ্যে একটির ওপরে উঠে উল্লাস করেছেন বিক্ষোভকারীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, সেনাবাহিনীর প্রধান কার্যালয়ের কাছে গোলাগুলির শব্দ শোনা গেছে। সামরিক বাহিনীর এই কার্যালয়ের সামনে গত এক সপ্তাহ ধরে বিক্ষোভ করে আসছেন বশিরের পদত্যাগ দাবিতে আন্দোলনরত জনগণ। সেনাবাহিনীর প্রধান এই কার্যালয়ে দেশটির প্রেসিডেন্ট বশিরের সরকারি বাসভবন এবং প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় রয়েছে।



গত ডিসেম্বরে দেশটির বাজারে রুটির দাম বেড়ে যাওয়ার পর থেকে বিক্ষোভ শুরু করে সাধারণ মানুষ। তাদের এই বিক্ষোভ ক্রমান্বয়ে প্রেসিডেন্টের পদত্যাগের আন্দোলনে রূপ নেয়। এই বিক্ষোভ থেকে বশিরের ৩০ বছরের শাসনের ভিত নড়ে গেল।

উত্তর দারফুরের উৎপাদন ও অর্থনীতি মন্ত্রী আদেল মাহজুব হুসেইন বলেছেন, প্রেসিডেন্ট ওমর আল-বশিরকে সরিয়ে দেয়ার পর ক্ষমতা অর্পণের জন্য একটি সামরিক পরিষদ গঠনের আলোচনা শুরু হয়েছে। এই পরিষদ অন্তঃর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করবে।



এক বিক্ষোভকারী বলেন, আমরা খবরের জন্য অপেক্ষা করছি। সেই খবর না জানা পর্যন্ত আমরা এখান থেকে যাবো না। তবে বশিরকে বিদায় নিতে হবে। ১৯৮৯ সালে ক্ষমতায় আসেন বশির। তারপর থেকে গত ৩০ বছর ধরে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।
সূত্র : রয়টার্স, আলজাজিরা, বিবিসি।














Related Articles

Close