বিনোদন

নারীবিদ্বেষ দূর করতে জায়রাকে ইসলাম ত্যগের পরামর্শ তসলিমার







বলিউড ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে সবাইকে হতবাক করে দিয়েছেন ‘দঙ্গল’ অভিনেত্রী জায়রা ওয়াসিম। ধর্মবিশ্বাসের সংঘাতের কারণেই অভিনয় ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জায়রা। অনেকেই নিন্দা করেছেন অভিনেত্রীর এহেন সিদ্ধান্তের। বাদ যাননি লেখিকা তসলিমা নাসরিনও।



নিজের ট্যুইটার পেজে লিখেছেন, “বলিউডের প্রতিভাবান অভিনেত্রী জায়রা ওয়াসিম অভিনয় ছেড়ে দিচ্ছেন শুধুমাত্র এই কারণে যে তার কাজের জন্য আল্লাহর ওপর থেকে তার বিশ্বাস হারিয়ে গিয়েছে! এই সিদ্ধান্ত নিয়ে খুব বোকামি করেছে। মুসলিম সম্প্রদায়ের কত প্রতিভা এই ভাবেই বোরখার অন্ধকারে হারিয়ে যাচ্ছে। তাদের জোর করে বোরখার আড়ালে নিয়ে আসা হচ্ছে।”



তিনি আরও লিখেছেন, “সবাই বলছে ধর্মীয় কারণে জায়রার অভিনয় ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্তকে শ্রদ্ধা করা উচিৎ। সত্যি? এই নারীবিদ্বেষী পিতৃশাষিত সমাজ মেয়েদের মগজধোলাই করছে। তাদের নমনীয়, পরনির্ভরশীল, অশিক্ষিত, ভৃত্য, যৌন বস্তু, সন্তান তৈরি করার যন্ত্র বানিয়ে রেখেছে। তাদের কোনও স্বাধীনতা নেই। এই পিতৃশাষিত সমাজের বিরুদ্ধে পুরুষ ও মহিলা দুজনকেই লড়াই করে এমন সমাজ তৈরি করতে হবে যেখানে সবাই সমান।”



তসলিমা আরও লিখেছেন, “ধর্ম নারীদের বিরুদ্ধে। কোনও মহিলারই এমন ধর্মে বিশ্বাস করা উচিৎ নয় যা তাদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে। ধর্ম ত্যাগ করো, পিতৃশাষিত সমাজের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াও, নারীবিদ্বেষ দূর করো।”



অভিনেত্রী রবিনা ট্যান্ডনও ট্যুইট করে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। লিখেছেন, “দুটো ছবি করে এই জগতের প্রতি কেউ অকৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলে তাতে কিছু যায় আসে না। শুধু তারা ভাল ভাবে বেরিয়ে যান এবং তাদের বিতর্কিত মতামত নিজেদের কাছেই রাখুন। এটাই কাম্য।”











Related Articles

Close