বিয়ানীবাজার
Trending

বিয়ানীবাজারের লন্ডন প্রবাসী দেশে এসে দ্বিতীয় বিয়ের প্রস্তুতিকালে প্রথম স্ত্রী’র থানায় অভিযোগ দায়ের







-লায়লা খাতুন ব্রিটিশ সিটিজেন। ২০০৯ সালে পারিবারিক ভাবে বিয়ে করেন বাংলাদেশী তরুণ মুজিবুর রহমানকে। বর কণে উভয়ের গ্রামের বাড়ী বিয়ানীবাজার উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের ঘুঙ্গাদিয়া গ্রামে। বিয়ের পর থেকে দু’জনের সংসার ভালোই চলছে। কয়েক বছরের মাথায় লায়লা খাতুন তার স্বামী মুজিবুর রহমানকে ব্রিটিশ ভিসায় লন্ডন নিয়ে যান। নিজের ঘরে তুলেন। স্বামী স্ত্রীর সংসার সেখানেও ভালোভাবে চলছিল।



ব্রিটিশ তরুণী লায়লা খাতুন অভিযোগ করেন তার স্বামী মুজিবুর রহমান স্বায়ী ভাবে লন্ডনে বসবাসের সুযোগ পাওয়ার পর থেকে তার প্রতি অনেকটা অবিচার শুরু করে। সে দেশে এসে দ্বিতীয় বিয়ে করবে বলে কথায় কথায় তার কাছে প্রকাশ করে। এ নিয়ে লন্ডনে দু’জনের মধ্যে মতো বিরোধও দেখা দেয়। কিন্তুু লায়লা খাতুন তাকে কোন বিয়ের অনুমতি দেন নি।



লায়লা খাতুনের চাচাত ভাই মোঃ শাহদাতুজ্জান জোহা জানান, সম্প্রতি মুজিবুর তার বোনকে না বলে দেশে আসেন এবং তার চাচাতো বোনের অনুমতি না নিয়ে দেশে এসে বিয়ের প্রস্তুুতি সম্পন্ন করেছেন এবং ২৪ জানুয়ারী মেওয়ার একটি বিয়ের অনুষ্ঠানের দিনক্ষন নির্ধারন করা হয়েছে। তিনি জানান, তার চাচাতো বোনের অনুমতি নিয়ে তিনি থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। পুলিশ তার বোনের জামাই’র বাড়ীতে বিষয়টি তদন্ত করতে গেছে।



বিষয়ে জানতে বিয়ানীবাজার থানার ওসি’র সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি একখানা অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করেছেন। মেওয়ার সেলিম বাগ কমিউনিটি সেন্টারের ম্যানেজার জানান, তাদের সেন্টারে মেওয়া গ্রামের জনৈক ব্যক্তির কন্যার বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য বুকিং করা হয়েছে।এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত মুজিবুর রহমানের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায় নি।
সূত্রঃ বিয়ানীবাজার টাইমস














Related Articles

Close