সারাদেশ
Trending

সিলেটের চিকিৎসক রুম্পার স্বপ্ন কেড়ে নিল বেপরোয়া গতির গাড়ি (ভিডিও)







নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ওয়ালিউর রহমান বিপুল। গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা উপজেলায় বাড়ি। দুইমাস আগে বিপুলের বাগদান হয় মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার মেয়ে সামিনা নূর নীলার সঙ্গে। ৫ অক্টোবর তাদের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। ছিল; কেননা বুধবার (২৯ আগস্ট) এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন নীলা। বেপরোয়া গতির গাড়ির চাপায় মুহূর্তেই তছনছ হয়ে গেছে বিপুল-নীলার সংসারের স্বপ্ন।



জানা গেছে, নীলা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে স্নাতক সম্পন্ন করেছেন। পরিবারসহ ঢাকাতেই ছিলেন তিনি। আজকে সকালে এনা পরিবহনের একটি বাসে ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়িতে যাচ্ছিলেন। বাসে সঙ্গী ছিলেন বাবা সালাউদ্দিন আলফি, মা রুবিনা নূর ও ছোট ভাই আসিফ। কিন্তু নির্মম সড়ক দুর্ঘটনায় নীলা ও তার মা ঘটনাস্থলেই মারা গেছেন। সালাউদ্দিন আলফি ও আসিফ গুরুতর আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন আছেন।



প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, দুপুর দেড়টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলায় এনা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের খাদের পানিতে পড়ে যায়। বাসটির গতি ছিল বেপরোয়া। ঘটনাস্থলেই তিনজন মারা যান। পরে স্থানীয় লোকজন ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা বাসের যাত্রীদের উদ্ধারে এগিয়ে আসেন।



সরাইল খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হোসেন সরকার জানান, দুপুরে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা সিলেট গামী এনা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সরাইল উপজেলার শাহবাজপুরের বৈশ্বামুড়া এলাকায় মহাসড়কের পাশে খাদের পানিতে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজন বাস যাত্রী মারা যান।



হবু স্ত্রী ও শাশুড়ির মৃত্যুর কথা বিপুল শুনতে পায় দুপুর সাড়ে তিনটার দিকে। স্থানীয় লোকজন যখন বিপুলকে এই মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে ফোন করে তখন তিনি তার কর্মস্থলে ছিলেন। মুহূর্তেই বিপুলের চোখে-মুখে অন্ধকার নেমে আসে। প্রিয়তমার লাশ দেখতে শ্রীমঙ্গলের পথে থাকা বিপুল কান্না জড়িত কণ্ঠে বার্তা২৪.কমকে বলেন, ‘সাত বছরের প্রেমের সম্পর্ক ছিল আমাদের। কিছুদিন আগে আমাদের বাগদান হয়েছে। ৫ অক্টোবর বিয়ে হওয়ার কথা। কিন্তু মুহূর্তেই সব তছনছ হয়ে গেল।’ আবেগাপ্লুত বিপুল আর কথা বলতে পারেন নি।



নীলার মৃত্যুর খবর বিপুল-নীলার ঘনিষ্ঠমহলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। বিপুলের দীর্ঘদিনের পরিচিত ও সৃহৃদ শামসুল কবির রাহাত বার্তা২৪কে বলেন, বিপুল সব সময় দু:খী। সারাজীবন ছেলেটা কষ্ট পেয়ে গেছে। আল্লাহ কেন ওকে বারবার পরীক্ষায় ফেলেন। নববধুর মুত্যু কীভাবে সইবে! আল্লাহ ওর স্ত্রীকে জান্নাতবাসী করুন।

ভিডিওটি দেখতে চাইলে এখানেই ক্লিক করুন














Related Articles

Close