সারাদেশ

জামায়াত কর্মীদের গুলিতে আওয়ামী লীগের আটজন গুলিবিদ্ধ, ভোটগ্রহণ স্থগিত







কাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম-১৫ আসনে সাতকানিয়া উপজেলার ছদাহা ইউনিয়নের সৈয়দাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হামলা ও গুলিবর্ষণের জেরে একটি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। এ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামউদ্দিন নদভী ও ধানের শীষ প্রতীকে জামায়াতের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর আ ন ম শামসুল ইসলামের মধ্যে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা রয়েছে।



পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীর ভাষ্য, জামায়াত কর্মীদের গুলিতে আওয়ামী লীগের আটজন কর্মী গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এর মধ্যে একজনের অবস্থা গুরুতর। গুলিবিদ্ধ ব্যক্তিদের মধ্যে সাতজনের পরিচয়ের বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তাঁরা হলেন ফরিদুল আলম (৪০), সালেহ আহমদ (৭০), হাসান মুরাদ (২৬), মিজানুর রহমান (২৫), মো. মুরাদ (২২), তারেক (২২), মো. মিনহাজ (২২। এর মধ্যে যুবলীগ নেতা ফরিদুল আলমের মাথায় গুলি লেগেছে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।



সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শফিকুল কবির জানান, পৌনে নয়টার দিকে আওয়ামী লীগ ও জামায়াত কর্মীদের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। এর কিছুক্ষণ পর জামায়াতের অন্তত তিন–চার শ লোক সংগঠিত হয়ে কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ কর্মীদের ওপর হামলা চালায়, গুলি ছোড়ে। ওই সময় সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছোড়ে। তাঁর দাবি, জামায়াতের গুলিতে আওয়ামী লীগের আটজন আহত হন। গুলিবিদ্ধ একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।



প্রসঙ্গত আজ শুরু হয়েছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ৷ বাংলাদেশ সময় সকাল ৮টায় শুরু হয়ে চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত৷ সারা দেশে ৪০ হাজার ১শ’ ৮৩টি ভোটকেন্দ্রে ১০ কোটি ৪১ লাখ ৯০ হাজার ৪শ’ ৮০ জন মানুষ ভোট দিচ্ছেন৷

ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নৌকার জয়ের বিষয়ে তিনি দৃঢ়ভাবে ‘আত্মবিশ্বাসী’৷সকাল ৮টায় ভোটের শুরুতেই ঢাকার সিটি কলেজ কেন্দ্রে গিয়ে নিজের ভোটটি দেন শেখ হাসিনা৷ এ কেন্দ্রে তিনিই ছিলেন প্রথম ভোটার৷



জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন রাজধানীর বেইলি রোডে ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে ভোট দিয়েছেন৷ সকাল পৌনে ৯টায় স্ত্রী হামিদা হোসেন ও মেয়ে সারা হোসেনকে নিয়ে ভোটকেন্দ্রে এসে ভোট দেন তিনি৷
সূত্রঃ সময়ের কন্ঠস্বর











Related Articles

Close